হোয়াটসঅ্যাপে ২ স্টেপ ভেরিফিকেশন কিভাবে চালু করবো

হোয়াটসঅ্যাপে ২ স্টেপ ভেরিফিকেশন

আমাদের অনেকেরই হয়তো অজানা যে সকল ব্যবহারকারীর নিরাপত্তার স্বার্থে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন সুবিধা রেখেছে হোয়াটসঅ্যাপ। আপনার হোয়াটসঅ্যাপে বাড়তি নিরাপত্তা যোগ করতে চাইলে অবশ্যই টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন ফিচারটি ব্যবহার করা উচিত।

২০১৭ সালে প্রথম টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন ব্যবহারের সুবিধা চালু করে হোয়াটসঅ্যাপ কতৃপক্ষ। হোয়াটসঅ্যাপে যেহেতু প্রচুর পরিমাণে ব্যক্তিগত তথ্য থাকে, তাই এই অ্যাপটি অধিক হ্যাকের শিকার হয়ে থাকে। হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্ট হ্যাক করে উক্ত অ্যাকাউন্ট অ্যাকসেস করা থেকে হ্যাকারকে রুখে দিতে সক্ষম এই ফিচারটি।

হোয়াটসঅ্যাপে কিভাবে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করতে হয়, সে সম্পর্কে সবার ধারণা থাকা উচিত। আবার আপনার হোয়াটসঅ্যাপের তথ্য যদি আপনার কাছে বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়, সেক্ষেত্রে এই ফিচার অবশ্যই ব্যবহার করা উচিত।

আরো পড়ুন:

হোয়াটসঅ্যাপে নতুন আপডেটে কি কি থাকছে ২০২২
সবচেয়ে বেশি চার্জ থাকে কোন মোবাইলে ২০২২ 

হোয়াটসঅ্যাপ টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন কি?

টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন কি সে সম্পর্কে ইতিমধ্যে আমাদের কমবেশি সবার ধারণা রয়েছে। মূলত অনলাইন একাউন্টসমূহ অ্যাকসেস করার সময় মোবাইল নাম্বার বা ইমেইল একাউন্টে ভেরিফিকেশন কোড পাঠানোর প্রক্রিয়াকে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন বলা হয়। তবে হোয়াটসঅ্যাপের ক্ষেত্রে ফিচারটি একটু আলাদাভাবে কাজ করে। কেননা হোয়াটসঅ্যাপের ক্ষেত্রে টু স্টেপ ভেরিফিকেশন পিন ইউজার কর্তৃক সেট করে সেটা মনে রাখতে হয়।

ফেসবুক, গুগল এর মত বড় সার্ভিসগুলো বর্তমানে তাদের প্ল্যাটফর্মের ব্যবহারকারীদের জন্য টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অনেকটা বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে। একইভাবে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকসেস করার প্রক্রিয়াতে ভেরিফিকেশন কোড যোগ করে এই টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন বাড়তি সুরক্ষা প্রদান করে।

হোয়াটসঅ্যাপে ২ স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করবো কিভাবে

হোয়াটসঅ্যাপে প্রবেশ করে থ্রি-ডট মেন্যু হতে Settings অপশনে ট্যাপ করুন

এরপর প্রথমে Account ও পরে Two-step verification সিলেক্ট করুন

এরপর Enable অপশনে ট্যাপ করুন

উল্লেখিত অপশনে ক্লিক করার পর একটি ৬ডিজিটের পিন সেট করতে বলা হবে যা ফোন নাম্বার ভেরিফাই এর কাজে লাগবে। এছাড়া মাঝেমধ্যে এই পিন চাইবে হোয়াটসঅ্যাপ, যা এই পিন মনে রাখতে সাহায্য করবে

হোয়াটসঅ্যাপে টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করার পর উক্ত হোয়াটসঅ্যাপ একাউন্টে একটি ইমেইল এড করতে বলা হবে। এই ইমেইল মূলত হোয়াটসঅ্যাপ এর পিন ভুলে গেলে সেক্ষেত্রে তা রিসেট করার কাজে লিংক পাঠাতে কাজে আসবে। টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু করার পর অবশ্যই ইমেইল এড্রেস এড করতে ভুলবেন না। আপনার পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে মোট ৭দিন অপেক্ষা করতে হবে পাসওয়ার্ড রিসেট করতে চাইলে।

যেকোনো ইমেইল এড্রেস আপনার হোয়াটসঅ্যাপে একাউন্টে যুক্ত করতে Settings > Account > Two-step verification অপশনে প্রবেশ করে এরপর add Email Address সিলেক্ট করে ইমেইল এড্রেস প্রদান করুন।

How to manage whatsapp two-step verification settings

Enable two-step verification

Open WhatsApp Settings.

Tap Account > Two-step verification > Enable.

Enter a six-digit PIN of your choice and confirm it.

Provide an email address you can access or tap Skip if you don’t want to add an email address. We recommend adding an email address as this allows you to reset two-step verification, and helps safeguard your account.


Tap Next.

Confirm the email address and tap Save or Done.

Disable WhatsApp  two-step verification:

Open WhatsApp Settings.

Tap Account > Two-step verification >Disable > Disable.

Change your two-step verification PIN

Open WhatsApp Settings.

Tap Account > Two-step verification > Change PIN.

Add an email address

Open WhatsApp Settings.


Tap Account > Two-step verification > tap Add Email Address.

Change an email address

Open WhatsApp Settings.

Tap Account > Two-step verification > tap Change Email Address.

You can manage two-step verification settings in your WhatsApp account. You have the option to enable or disable this feature, change the PIN or update the email address associated with two-step verification.

If you don’t add an email address and you forget your PIN, you’ll have to wait 7 days before you can reset your PIN. Since we don't verify this email address to confirm its accuracy, make sure you provide an accurate email address you can access.

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url