ভিভো এক্স৮০ প্রো (X80 Pro ) ফোনের ফিচার ও স্প্যাসিফিকেশন

ভিভো এক্স৮০ প্রো (X80 Pro ) ফোনের ফিচার ও স্প্যাসিফিকেশনভিভো এবার নিয়ে এলো ভিভো এক্স৮০ প্রো, যা ক্যামেরা ডিপার্টমেন্টে বর্তমানের সেরা ফ্ল্যাগশিপ, আইফোন ১৩ প্রো বা স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২২ আলট্রার এর মত ফোনের সাথে টেক্কা দিতে পারে।আজকের এই ব্লগে আমরা জানবো ভিভো’র নতুন ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরা ফোন, ভিভো এক্স৮০ প্রো সম্পর্কে।

Specification of Vivo X60 Pro, ভিভো এক্স৮০ প্রো (X80 Pro ) ফোনের ফিচার ও স্প্যাসিফিকেশন

ভিভো এক্স৮০ প্রো এর  স্পেসিফিকেশন

  • ডিসপ্লেঃ 

o    ৬.৭৮ইঞ্চি

o    অ্যামোলেড এইচডিআর১০+

o    ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট

  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ অক্টা-কোর
  • র‍্যামঃ ৮জিবি / ১২জিবি
  • স্টোরেজঃ ২৫৬জিবি / ৫১২জিবি
  • ব্যাক ক্যামেরাঃ

o    ৫০মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা

o    ৮মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা + ওআইএস

o    ১২মেগাপিক্সেল টেলিফটো ক্যামেরা + গিম্বল ওআইএস

o    ৪৮মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা

  • ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ ৩২মেগাপিক্সেল
  • ব্যাটারিঃ ৪,৭০০মিলিএম্প
  • চার্জিংঃ 

o    ৮০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং

o    ৫০ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং

  • দামঃ ৭৯,৯৯৯রুপি

ভিভো এক্স৮০ প্রো  X80 Pro ডিজাইন ও ডিসপ্লে

ভিভো এক্স৮০ প্রো ফোনটির ব্যাকে স্থান পেয়েছে এর বিশাল রিয়ার ক্যামেরা সেটাপ। চারটি ক্যামেরা লেন্সের মধ্যে তিনটি ব্যাক গ্লাসের গোল অংশে স্থান পেয়েছে ও অন্যটি অদ্ভুতভাবে এক পাশে রাখা হয়েছে। ফোনের ফ্রন্টে স্থান পেয়েছে মিনিমাল পাঞ্চ-হোল নচ। ভিভো এক্স৮০ প্রো ফোনটির ফ্রন্ট প্যানেলে খুব অল্প পরিমাণে বেজেল রয়েছে। অর্থাৎ এই ডিজাইনে রয়েছে প্রিমিয়ামনেস এর ছোঁয়া। 

ভিভো এক্স৮০ প্রো যেহেতু একটি ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইস, স্বভাবতই এর ডিসপ্লে অসাধারণ হতে হবেই। ৬.৭৮ইঞ্চির ২কে অ্যামোলেড (1440 x 3200) প্যানেল রয়েছে ফোনটিতে যা আবার ১২০হার্জ রিফ্রেশ রেট সাপোর্টেড। ১৫০০নিটস পর্যন্ত সর্বোচ্চ ব্রাইটনেস প্রদান করতে পারবে এই ডিসপ্লে। আরো রয়েছে এইচডিআর১০+ প্লেব্যাক ফিচার যার মাধ্যমে অসাধারণ হাইলাইট ও শ্যাডো উপভোগ করা যাবে।

ভিভো এক্স৮০ প্রো  X80 Pro ক্যামেরা

ভিভো এক্স৮০ প্রো এর মেইন সেলিং পয়েন্ট হলো এর ক্যামেরা সেটাপ। বেশ অনেকদিন ধরেই জাইস (Zeiss) এর সাথে পার্টনারশিপে আবদ্ধ রয়েছে ভিভো, তবে এবার সত্যিকার অর্থে জাইস প্রযুক্তির যথাযথ ব্যবহার করেছে ভিভো।

ভিভো এক্স৮০ প্রো এর প্রতিটি লেন্সে রয়েছে জাইস টি* কোটিং, যার ফলে এই ক্যামেরা দ্বারা ছবি তোলার সময় অপেক্ষাকৃত কম রিফ্লেকশন তৈরী হবে। কম রিফ্লেকশন এর ফলে ছবি অনেকটা ন্যাচারাল দেখাবে ও প্রায় যেকোনো ধরনের অবস্থায় ভালো ছবি আউটপুট দিতে পারবে। ভিভো এক্স৮০ প্রো ফোনটির মেইন সেন্সর হিসেবে থাকছে ৫০মেগাপিক্সেলের নতুন GNV সেন্সর যাতে অপটিক্যাল স্ট্যাবিলাইজেশন রয়েছে।  ফোনটির আরেকটি অসাধারণ ফিচার হলো এর নাইট ফটোগ্রাফি ফিচারগুলো। নাইট ফটোগ্রাফিকে অসাধারণ করে তুলতে অসংখ্য ধরনের ক্যামেরা ফিচার রয়েছে ফোনটিতে। এছাড়া নাইট ভিডিও এর ক্ষেত্রে এই ফোনটি বর্তমানে বাজারের সবচেয়ে সেরাদের মধ্যে থাকবে।

ভিভো এক্স৮০ প্রো এর পোর্ট্রেইট লেন্স নিয়ে বেশ গর্বিত ভিভো। ১২মেগাপিক্সেলের এই লেন্সে গিম্বল স্ট্যাবিলাইজেশন রয়েছে যা ফোনটির ক্যামেরা ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে বেশ সহজ করে তোলে। আলাদা করে জাইস এর বদৌলতে ন্যাচারাল কালার আউটপুট এর কথা না বললেই নয়

আলট্রাওয়াইড লেন্স হিসেবে ৪৮ মেগাপিক্সেল সেন্সর রয়েছে ফোনটিতে যা যেকোনো ধরনের অবস্থায় ডিটেইলড ছবি তুলতে সক্ষম। ৮মেগাপিক্সেল পেরিস্কোপ লেন্স ৫ক্স অপটিক্যাল জুম সাপোর্ট করে, যা সর্বোচ্চ ৬০ক্স পর্যন্ত ডিজিটালি আপস্কেল করা যায়। সেলফি ক্যামেরায় পাচ্ছেন ৩২ মেগাপিক্সেল লেন্স।

আরো পড়ুন:

Hreflanf কি?

পিক্সেল ৬এ স্মার্টফোন আসছে বাংলাদেশের বাজারে

স্ট্রং ব্যাটারি মোবাইল কোনটি

হোয়াটসঅ্যাপের নতুন আপডেটে কি কি রয়েছে?

ভিডিও ডিপার্টমেন্টেও বেশ শক্তিশালী ভিভো এক্স৮০ প্রো। ফোনটিতে সর্বোচ্চ ৮কে রেজুলুশনে ৩০এফপিএস ভিডিও রেকর্ড করা যাবে (4K 30/60, 1080 30/60 fps)। এছাড়া ফোনটিতে অসাধারণ অ্যাস্ট্রোগ্রাফি মোড রয়েছে যা দ্বারা বেশ আর্টিস্টিক ছবি তোলা সম্ভব।

ভিভো এক্স৮০ প্রো  X80 Pro পারফরম্যান্স

ভিভো এক্স৮০ প্রো ফোনটিতে থাকা স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ১ প্রসেসর এর ক্ষমতা সম্পর্কে বর্তমানে সবার কমবেশি ধারণা রয়েছে। এই প্রসেসরের কল্যাণে এমন কোনো টাস্ক নেই যা এই ফোন ভালোভাবে সম্পন্ন করতে পারেনা।সর্বোচ্চ ১২জিবি র‍্যাম ও ৫১২জিবি স্টোরেজ থাকছে ফোনটিতে। অর্থাৎ ৮কে ভিডিও রেকর্ডিং থেকে শুরু করে যেকোনো ধরনের গেম বা অ্যাপ ব্যবহার করা যাবে নিজের সুবিধামত। তবে ফোনটিতে কোনো ধরনের মেমোরি কার্ড স্লট থাকছেনা।

ভিভো এক্স৮০ প্রো  X80 Pro ব্যাটারি

ভিভো এক্স৮০ প্রো ফোনটিতে ৪৭০০মিলিএম্প ব্যাটারি রয়েছে, যা তেমন আহামরি কোনো ফিচার নয়। আবার ৮০ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং ও বর্তমান সময়ের বিচারে স্বাভাবিক মনে হবে। তবে এই ফোনটির ব্যাটারি ডিপার্টমেন্টে যা অসাধারণ তা হলো এতে থাকা ৫০ওয়াট এর ওয়্যারলেস চার্জিং। গ্লোবালি ভিভো এক্স৮০ প্রো ফোনটিতে অ্যান্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক ফানটাচ ওএস এর দেখা মিলবে তবে চীনে এক্সক্লুসিভলি ভিভো নতুন অরিজিন ওএস ব্যবহৃত হয়েছে ফোনটিতে যেহেতু এটি ভিভো ফোন, তাই কাস্টোমাইজেশন এর সুবিধা রয়েছে প্রচুর ফোনটির প্রায় প্রত্যেকটি ফিচার কাস্টমাইজেশন এর সুযোগ রয়েছে

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url