মোবাইল বা স্মার্টফোন গরম হয় কেন? মোবাইল ঠান্ডা রাখার সফটওয়্যার ২০২২

মোবাইল বা স্মার্টফোন গরম হয় কেন? মোবাইল ঠান্ডা রাখার সফটওয়্যার ২০২২: স্বাভাবিকভাবে সব ফোনই কাজ করার সময় ৩৫-৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস গরম হতে পারে। এটি কোনো সমস্যা নয়। কিন্তু ফোন যখন অস্বাভাবিক ভাবে গরম হয়ে যাবে এবং মোবাইলটি টাচ করা যাবে না তখন বুঝবেন মোবাইলে কোনো সমস্যা হয়েছে। আবার যখন মোবাইল স্ট্যান্ডবাই মোডেও গরম হয়ে যাবে তখন ও বুঝতে হবে যে মোবাইলে কোনো সমস্যা হয়েছে।

মোবাইল বা স্মার্টফোন গরম হয় কেন? মোবাইল ঠান্ডা রাখার সফটওয়্যার ২০২২

মোবাইল গরম হয় কেন

স্মার্টফোন গরম হওয়ার একটি কারণ হচ্ছে প্রসেসর গরম হয়ে যাওয়া। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন স্মার্টফোনের মূল অঙ্গ হচ্ছে প্রসেসর। প্রসেসর এমন একটি ডিভাইস, যা সবসময় কাজ করে। আপনি ফোন ব্যবহার করেন আর নাই করেন। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ইলেকট্রন দিয়ে প্রসেসর তৈরি হয়। প্রসেসর স্মার্টফোনের বডির সাথে লাগানো থাকে, ফলে তাপ অনুভব হয়। ফোন গরম হওয়ার আরেকটি কারণ হচ্ছে দুর্বল নেটওয়ার্ক। আপনার ফোনে যদি নেটওয়ার্ক দুর্বল থাকে তখন সিগন্যাল যায় আর আসে। আবার ওয়াইফাই ব্যবহারে সিগন্যালের জন্য অনেক বেগ পেতে হয়। দুর্বল নেটওয়ার্কের জন্য ফোনে বেশি চাপ পরে, ফলে স্মার্টফোন অত্যধিক গরম হয়। আপনার ফোন কম দামি বলে বেশি গরম হয়, তা ঠিক নয়। স্বাভাবিকভাবে স্মার্টফোন ৩৫-৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত গরম হতে পারে। তবে স্ট্যান্ডবাই মোডেও যদি ফোনটি ৩৫-৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত গরম হয় তবে বুঝবেন আপনার ফোনে সমস্যা আছে মোবাইল কোম্পানিগুলো বর্তমানে স্মার্টফোন দিন দিন পাতলা করছে। তবে তার তুলনায় ব্যাটারির প্রযুক্তি তেমন উন্নত হয়নি। ব্যাটারি যত বেশি দুর্বল হবে ফোন তত বেশি তাপ উৎপন্ন করবে। ব্যাটারি চার্জ নেয়ার সময় অথবা ডিচার্জ হওয়ার সময়ও ফোন বেশি গরম হয়। 

আরো পড়ুন:

Ezoic (ইজোইক) কী? Ezoic দিয়ে বাংলা ওয়েবসাইটের আয় বৃদ্ধি করুন ২০২২
পাসওয়ার্ড ছাড়া ওয়াইফাই কানেক্ট করার নতুন নিয়ম ২০২২
ফ্রি গেস্ট পোস্টিং সাইট ২০২২ । ফ্রি গেস্ট পোস্টিং সাইট Verified List

মোবাইল ঠান্ডা রাখার সফটওয়্যার

মোবাইল মোবাইল ঠান্ডা রাখার সফটওয়্যার বলে কিছু নেই, যদি কোথাও এমন সফটওয়ার দেখেন তাহলে চোখ বন্ধ করে বুঝে নিবেন এটি স্ক্যাম ব্যাতিত আর কিছু নয়।  আপনার মোবাইল ঠান্ডা রাখতে নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করলে আশা করি ভালো ফলাফল পাবেন।

  • নিয়মিত সফটওয়্যার আপডেট করতে হবে। পুরনো ভার্সন ব্যবহার করলে তা ফোনে উত্তাপ বাড়ায়।
  • ডাউনলোড করার সময় খেয়াল রাখতে হবে যেন ফোনে পর্যাপ্ত চার্জ থাকে। কম চার্জে ডাউনলোড করলে ব্যাটারির ওপর চাপ পড়ে এবং ফোন গরম হয়ে যায়।
  • স্মার্টফোনের কভার বা কেস সরিয়ে ফেলুন।
  • চার্জ দেওয়ার সময় শক্ত স্থানে রাখুন।
  • সারা রাত চার্জার লাগিয়ে রাখবেন না।
  • ফোন গরম করে তোলে এমন অ্যাপ সরিয়ে ফেলুন।
  • মোবাইল সরাসরি সূর্যের আলোতে রাখবেন না।
  • অনুমোদিত নয় এমন চার্জার ও ব্যাটারি ব্যবহারে না।
  • ব্রাইটনেস অপটিমাইজেশন করুন।
  • অব্যবহৃত সফটওয়্যার আনইন্সটল
  • হেভি গেম কমিয়ে আনা
  • ঠিকমতো চার্জ করা

স্মার্টফোন হ্যাং হয়ে গেলে করণীয়

  • খুব বেশি গরম হলে স্মার্টফোন হ্যাং হয়ে যায়। তবে নিচের নিয়মগুলো মেনে চললে স্মার্টফোন দ্রুত ঠান্ডা করা সম্ভব।
  • অনেকেই স্মার্টফোনের সুরক্ষায় অতিরিক্ত কেস বা কভার ব্যবহার করেন। স্মার্টফোন ঠান্ডা করার জন্য দ্রুত এগুলো খুলে ফেলুন।
  • সেটিংস অপশনে প্রবেশ করে এয়ারপ্লেন বা ফ্লাইটমোড চালু করে স্মার্টফোনের সঙ্গে অন্য সব ধরনের যন্ত্রের সংযোগ নিষ্ক্রিয় করুন।
  • ডিসপ্লের উজ্জ্বলতা কমানোর পাশাপাশি ব্যাটারি সেভার মোড চালু করুন।
  • জাংক ফাইল মুছে ফেলার পাশাপাশি প্রয়োজন ছাড়া ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ও জিপিএস বন্ধ রাখুন।
  • স্মার্টফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে চলা সব অ্যাপস বন্ধ করুন: সবসময় খেয়াল রাখবেন যে, ফোনে যেন চার্জ থাকে। একসাথে বেশি অ্যাপস চালু করে রাখবেন না। ফোনের অতিরিক্ত অ্যাপস ব্যাকগ্রাউন্ডে বেশি জায়গা নিচ্ছে কিনা সেদিকে খেয়াল রাখুন। স্মার্টফোন বেশি ব্যবহার করলে বা ফোনে অতিরিক্ত গেমস খেললে গরম হয় এটা একেবারেই ঠিক নয়।
  • সবসময় ডেটা/ওয়াইফাই চালু থেকে বিরত থাকুন: অনেকেই ফোনের সঙ্গে সারারাত চার্জার লাগিয়ে রাখেন। সারারাত চার্জ দেয়ার ফলে দীর্ঘমেয়াদে ব্যাটারির সক্ষমতার ওপর প্রভাব পড়ে এবং ফোন গরম হয়। অনেক সময় অতিরিক্ত গরমে ফোনে আগুন লাগার ঘটনাও ঘটতে পারে।
  • মোবাইলে গেমস খেললে বা ইন্টারনেট ব্যবহার করলে এমনকি বেশ কিছুক্ষণ কথা বললেই গরম হয়ে যাচ্ছে ফোন? আর গরম হওয়ার পরই কি ফোনটি হ্যাং হয়ে যাচ্ছে? চিন্তার কোনো কারণ নেই। নিচের কয়েকটি পদ্ধতি অনুসরণ করলে আপনার মোবাইল গরম হওয়া থেকে বাঁচাতে পারবেন। তার আগে জেনে নেওয়া যাক মোবাইল কেন গরম হয়ে যায়।

মোবাইল চার্জ দিলে গরম হয় কেন

দুর্বল নেটওয়ার্ক: স্মার্টফোনে আমরা প্রচুর পরিমাণে ইন্টারনেটের ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু এই ইন্টারনেট সব জায়গায় সমান সিগন্যাল পায় না। যেখানে সিগন্যাল দুর্বল, সেখানে ফোনকে নেটওয়ার্ক চালু রাখতে বেশ কসরত করতে হয়। ফলে সহজেই ফোন গরম হয়ে ওঠে।

প্রসেসর: প্রসেসরই হল একটি ফোনের প্রাণ। স্মার্টফোনটি চালানোর সময় অনবরত চলতে থাকে প্রসেসরটি। প্রসেসর চলাকালীন তার ভেতরের ইলেক্ট্রনগুলোয় তাপ উৎপাদিত হয়ে থাকে। ফোন ব্যবহার না করলে অবশ্য সেই তাপ কম হয়। কিন্তু ফোন বেশি ব্যবহার করলে সেই তাপ বেশি উৎপন্ন হয়, তখন ফোনটির বডিতে গরম অনুভূত হয়।

ব্যাটারি: যত দিন গড়াচ্ছে ততোই স্লিম হচ্ছে স্মার্টফোন। কিন্তু সেই তুলনায় ব্যাটারি উন্নত হচ্ছে না। যার ফলে ফোন চার্জ দেওয়ার সময় পারিপার্শ্বিক অবস্থার কারণে বেশি গরম হয়ে যাচ্ছে ব্যাটারি। 

ব্যাকগ্রাউন্ডে অতিরিক্ত সফটওয়্যার রাখা: আপনি যদি কোনো অ্যাপ থেকে বের হয়ে ক্লিয়ার ক্যাশ না করেন তাহলে সেই অ্যাপটি অটোমেটিক ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকে। অসংখ্য অ্যাপ ব্যাকগ্রাউন্ডে ফেলে রাখার কারণে অতিরিক্ত গরম হতে পারে সেটটি।

দীর্ঘ সময় ধরে মোবাইল ব্যবহার করা: আমরা যদি দীর্ঘ সময় ধরে মোবাইল ফোন ব্যবহার করি তাহলে ও মোবাইল ফোন গরম হতে পারে। তাই দীর্ঘ সময় ধরে মোবাইল ব্যবহার করা যাবে না।

ফুল চার্জ হওয়ার পরও মোবাইল চার্জে রাখা: মোবাইল ফোন পুরোপুরি চার্জ হওয়ার পরেও মোবাইল ফোনকে চার্জের রেখে দেওয়া মোবাইল ফোন গরম হওয়ার একটি কারণ। তাই ১০০% চার্জ হয়ে গেলে মোবাইল চার্জার থেকে খুলে ফেলা উচিৎ।

চার্জে রেখে মোবাইল ব্যবহার না করা: আমরা অনেক সময় মোবাইল ফোন চার্জে লাগিয়েই ফোন ব্যাবহার করতে থাকি। অনেকে তো গেম ও খেলা শুরু করে দেন। কিন্তু এটি করা একদমই উচিৎ নয়। এতে করে চারজিং এ বাধা সৃষ্টি হয় এবং মোবাইল আস্তে আস্তে গরম হতে থাকে।

কখন বুঝবেন ফোন বেশি গরম হচ্ছে?

৩৫-৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত গরম হতে পারে। তবে স্ট্যান্ডবাই মোডেও যদি ফোনটি ৩৫-৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত গরম হয় তবে বুঝবেন আপনার ফোনে সমস্যা আছে।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url