কিভাবে ফ্রি এবং পেইড ওয়েবসাইট বানানো যায়? ওয়েবসাইট বানাতে কত টাকা খরচ হয়?

বর্তমান সময়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পরিচালনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন কারণে একটি ওয়েবসাইটের গুরুত্ব অপরিসীম। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না কিভাবে একটি ওয়েব তৈরি করতে হয়। আজকের এই ব্লগে আমরা আলোচনা করব কিভাবে আপনি পেইড এবং ফ্রী ওয়েবসাইট খুব সহজেই তৈরি করতে পারবেন।

কিভাবে ফ্রি এবং পেইড ওয়েবসাইট বানানো যায়? ওয়েবসাইট বানাতে কত টাকা খরচ হয়?

কিভাবে ফ্রি এবং পেইড ওয়েবসাইট বানানো যায়?

প্রযুক্তির অগ্রগতির সাথে সাথে ওয়েবসাইট তৈরি করা এখন অনেক সহজ। এখন ওয়েবসাইট তৈরি কর‍তে অনেক টাকা দিয়ে ডেভেলপার হায়ার করতে হয় না এমনকি চাইলে সম্পূর্ণ বিনা মূল্যেও একটি চমৎকার ওয়েবসাইট তৈরি করে ফেলা যায়।

আপনি যদি কাস্টম ডোমেইন চান তাহলে সেটা আপনাকে কিছু টাকা খরচ করতে হবে। আপনার ওয়েবসাইট হোস্ট করার জন্য সার্ভার কিনতে হবে, ফ্রিতে হোস্টিং পাওয়া গেলেও সব ধরনের ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রে ফ্রী হোস্টিং উপযোগী নয়।

কিভাবে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন?

আপনি যখন ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চাইবেন তখন আপনাকে কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে। 

  1. ওয়েবসাইটের লোড স্পীড কম হতে পারে
  2. বিভিন্ন ফিচারে রেস্ট্রিকশন থাকতে পারে
  3. আপনার ডোমেইনে কখনো সিকিউরিটি রিস্ক থাকতে পারে

যদি বিশেষ কোনো কারণে আপনি ফ্রী হোস্টিং ব্যবহার করতেই হয় সেক্ষেত্রে বিশ্বস্ত প্ল্যাটফর্ম রয়েছে সেগুলো ট্রাই করুন। নিচে কিছু বিশ্বাসযোগ্য প্ল্যাটফর্ম তুলে ধরা হল।

ব্লগার ফ্রী ওয়েবসাইট 

Blogger হচ্ছে গুগলের একটি প্ল্যাটফর্ম যা দিয়ে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আপনি একটা ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারবেন। এখানে আপনি বিভিন্ন Post, কাস্টমাইজ ডিজাইন, প্রি-বিল্ড থিম ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন। ভিজিটরদের ইনসাইটসহ ওয়েবসাইটকে মনিটাইজ করার ব্যবস্থাও আছে এখানে।

Blogger, ওয়েবসাইট তৈরি করলে আপনাকে হোস্টিং নিয়ে ভাবতে হবে না। আপনি এখানে ফ্রিতে আনলিমিটেড হোস্টিং পেয়ে যাবেন। আপনার ওয়েবসাইটে ডোমেইন হবে blogpost.com অথবা com/net/info/xyz ইত্যাদি কাস্টম ডোমেইন কিনে নিতে পারেন। ব্লগারের মাধ্যমে আপনি ব্লগ ওয়েবসাইট, নিউজ ওয়েবসাইট এবং পোর্টফলিও ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। ভাল থিম ব্যবহার করে খুব সহজেই এখানে ওয়েবসাইটের প্রফেশনাল লুক দেয়া যায়।

WordPress.com ফ্রী ওয়েবসাইট

WordPress.com অনেকাংশে Blogger এর মতই তবে এখানে স্টোরেজের লিমিট রয়েছে। এখানে প্রিমিয়ামে অনেক ফাংশন পেলেও ফ্রিতে ব্যাসিক ফাংশনালিটি পাবেন। যেমন আপনি আপগ্রেড করলে ওয়েবসাইটে পেমেন্ট অপশন যোগ করতে পারবেন।

আপনি যদি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি কর‍তে চান তাহলে WordPress.com ব্যবহার করতে পারেন। এখানে আপনি ব্লগার থেকেও বেশি ফিচার পাবেন। আর প্রিমিয়াম প্ল্যান নিলে তো কথাই নেই।

GitHub ফ্রী ওয়েব পেজ 

ডেভেলপাররা তাদের প্রজেক্ট প্রোমোট করার জন্য, GitHub Page ব্যবহার করে। যেকেউ চাইলেই GitHub Pages ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি বা হোস্ট করতে পারে।

GitHub মূলত আপনাকে লার্নিং ওয়েবসাইট অফার করবে, সবাই এতে সন্তুষ্ট নাও হতে পারে। আপনার হাতে সময় থাকলে একবার ট্রাই করে দেখতেই পারেন।

এই ব্লগ যদি আপনার ভালো লাগে এবং কিছুটা হলেও কাজে আসে অবশ্যই পোস্টটি শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দেবেন। আপনার অভিমত এবং অভিযোগ জানাতে কমেন্ট করুন অথবা সরাসরি ই-মেইল করুন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url